ডায়মন্ডের নাকফুল বুবলী উপহার পেতেই পারেন, আমি দিইনি: শাকিব খান

0
21

বিনোদন প্রতিবেদক: সন্তান শেহজাদ খান বীরের বাবা ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানের কাছ থেকে এবার জন্মদিনে একটি হীরার ‘নাকফুল’ উপহার পেয়েছেন বলে জানান শবনম বুবলী। ২০ নভেম্বর ঢালিউডের এই তারকা ৩৩ পূর্ণ করে ৩৪ বছরে পা রাখেন। বুবলীর হীরার নাকফুল উপহার পাওয়ার খবরে ফেসবুকে পোস্ট দেন অপু বিশ্বাস। ‘শাকিবের কাছ থেকে ডায়মন্ডের নাকফুল পেয়ে বুবলীর চোখে জল’, এমন শিরোনামের একটি সংবাদ নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করে একাধিক হাসির ইমোটিকন দেন অপু। শুধু তা-ই নয়, অপু লিখেছেন, ‘কী যে মজা, মজা।’ হীরার নাকফুল উপহারের কেন্দ্রে যেহেতু শাকিব খান, তাই কথা হয় তাঁর সঙ্গে।শাকিব খান সরাসরি জানালেন, তিনি বুবলীকে কোনো হীরার নাকফুল উপহার দেননি।

এ বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর হঠাৎ জানা যায়, শাকিব খান ও শবনম বুবলী মা-বাবা হয়েছেন। এই তারকা জুটির পুত্রসন্তানের বয়স আড়াই বছর। জানা যায়, বুবলী মা হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জ্যুইশ মেডিকেল হাসপাতালে। ২০২০ সালের ২১ মার্চ তিনি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন। সন্তানের নাম রাখা হয় শেহজাদ খান বীর। এর ঠিক দুদিন পর বুবলী তাঁর ফেসবুক পোস্টে জানান, তাঁর জীবনের দুটি স্মরণীয় তারিখের কথা। বুবলী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমার জীবনের স্মরণীয় দুটো তারিখ। ২০ জুলাই ২০১৮, এটি আমাদের বিয়ের তারিখ। আর ২১ মার্চ ২০২০ আমার ছেলের জন্মতারিখ।’ এরপর থেকে শাকিব খান ও বুবলীকে ঘিরে চলে আলোচনা।

তবে ঘোষণার ঠিক দুদিন পর ঢাকার একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ‘লিডার, আমিই বাংলাদেশ’ ছবির গানের শুটিংয়ে দেখা যায়, তাঁরা কেউ কারও সঙ্গে কথা বলেননি। এমনকি দুজনের বিশ্রামের জন্য পাঁচতারা সেই হোটেলে ছিল আলাদা দুটি কক্ষ। এরপর থেকে গুঞ্জন রটে, শাকিব–বুবলী কি আদৌ একসঙ্গে আছেন, নাকি সম্পর্ক ঘোষণার আগেই শেষ হয়ে গেছে। শাকিব গণমাধ্যমে বিভিন্ন কথার মাধ্যমে ইঙ্গিত দেন, তাঁদের মধ্যে কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই। তবে বুবলী সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, তাঁদের সম্পর্ক আছে। দুজনের এমন কথায় শাকিব খানের ভক্ত–শুভাকাঙ্ক্ষীরাও দোটানায় পড়েন।

সন্তানের ঘোষণার দুই মাসের মাথায় এসে বুবলীর জন্মদিনে শাকিব খানের কাছ থেকে হীরার নাকফুল উপহারের খবরে আরও দোটানায় পড়ে যান শাকিব খান–ভক্তরা। বিষয়টি নিয়ে শাকিব খানের বড় সন্তান আব্রাহাম খান জয়ের মা অপু বিশ্বাস ফেসবুকে খোঁচা দেন। ২৪ ঘণ্টা পার হওয়ার আগে বুবলীও খোঁচা দেন অপু বিশ্বাসকে।

বিষয়গুলো নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও চলচ্চিত্র–সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন গ্রুপে নানা ধরনের চর্চা চলতে থাকে। পুরো বিষয়টির কেন্দ্রে যেহেতু শাকিব খান, তাই বুধবার সন্ধ্যায় সরাসরি তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। একপর্যায়ে তাঁর সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা হয়।

শাকিব খান বললেন, ‘ডায়মন্ডের নাকফুল তিনি উপহার পেতেই পারেন। ১টা কেন, ১০টাও পেতে পারেন। তাঁর আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধবেরা আছেন। তবে সবাইকে আশ্বস্ত করে একটা কথা বলতে চাই, কোনো ধরনের ডায়মন্ড নাকফুল আমি তাঁকে উপহার দিইনি। সত্যি কথা বলতে, তাঁর সঙ্গে আমার কোনো ধরনের যোগাযোগ নেই। উপহার দেওয়া কিংবা উইশ করা—কোনোটাই আমার পক্ষ থেকে হয়নি। সন্তানের প্রয়োজনে সে আমাকে বা আমি তাকে লিখলেও তা শুধু শেহজাদকে কেন্দ্র করে যতটুকু দরকার, ততটুকুই হয়, এর বাইরে আর কোনো কিছুর প্রশ্নই আসে না।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY